শিরোনাম
লেখক ফোরাম সাহিত্য প্রতিযোগিতার বিচারক প্যানেলে আছেন যারা ডিএসইসি লেখক সম্মাননা পেলেন লেখক ফোরামের জহির উদ্দিন বাবর ও মাসউদুল কাদির আল্লামা শফীর ১৩ দফা বাস্তবায়নে পুনরায় সক্রিয় হচ্ছে হেফাজত সরকারবিরোধী আন্দোলন : বিএনপি নেতাকর্মীরা চাঙা তিন কারণে নারায়ণগঞ্জে আবারো গলাকাটা লাশ উদ্ধার গুলিস্তানে তৈরি হতো ফোন, লেখা ‘মেড ইন চায়না-ফিনল্যান্ড’ বাংলাদেশকে ২৮৫৪ কোটি টাকা ঋণ দিলো বিশ্বব্যাংক ইউক্রেনকে অস্ত্র দেয়া বন্ধ করুন: পশ্চিমা বিশ্বকে ব্রিটিশ রাজনীতিক টাঙ্গাইলে বাবাকে মেরে মসজিদের মাইকে প্রচার, ছেলে আটক খুলনা-মংলা পোর্ট রেলপথ ডিসেম্বরে চালু হবে : রেলপথ মন্ত্রী
সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:০৬ পূর্বাহ্ন

লেখক ফোরাম সাহিত্য প্রতিযোগিতার বিচারক প্যানেলে আছেন যারা

/ ৭২ পঠিত
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২৩ ডিসেম্বর, ২০২২

আওয়ার মিডিয়া : বাংলাদেশ ইসলামী লেখক ফোরামের সাহিত্য প্রতিযোগিতা-২০২২ এর জন্য একটি বিচারক প্যানেল গঠন করা হয়েছে। এই প্যানেলে রয়েছেন পাঁচজন বিশিষ্ট্ তরুণ লেখক সাংবাদিক।
বাংলাদেশ ইসলামী লেখক ফোরামের নবম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও লেখক সম্মিলন উপলক্ষে মাসজুড়ে অনলাইনে একটি সাহিত্য প্রতিযোগিতার আয়োজন করে সংগঠনটি। ছড়া-কবিতা, গল্প ও প্রবন্ধ এই তিনটি বিভাগে অনুষ্ঠিত হয় প্রতিযোগিতা। এই প্রতিযোগিতার বিচারকার্য পরিচালনার জন্য একটি বিচারক প্যানেল গঠন করা হয়েছে। প্যানেলে রয়েছেন- বিশিষ্ট লেখক গবেষক ও মুহাদ্দিস মুহাম্মদ যাইনুল আবিদীন, দৈনিক দেশ রূপান্তরের সহ-সম্পাদক ও কলামিস্ট মুফতি এনায়েতুল্লাহ, ঢাকা মেইলের যুগ্ম বার্তা সম্পাদক ও লেখক জহির উদ্দিন বাবর, দৈনিক আমার বার্তার সহকারী সম্পাদক কবি মাসউদুল কাদির এবং আওয়ার ইসলাম টোয়েন্টিফোর ডটকমের সম্পাদক ও লেখক হুমায়ুন আইয়ুব। তারা কয়েক দফা বিচারকার্যের মাধ্যমে তিনটি বিভাগের বিজয়ীদের বাছাই করবেন।

লেখক ফোরামের সভাপতি মুনীরুল ইসলাম বলেন, আগ্রহী নবীন-তরুণদের লেখালেখির হাতকে শক্তিশালী করতে এবং বুদ্ধিবৃত্তিক লড়াইয়ে যোগ্য করে গড়ে তুলতে লেখক ফোরামের এই সাহিত্য প্রতিযোগিতা। আলহামদুলিল্লাহ, প্রতিযোগিতায় আমরা ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। প্রতিযোগীরা তিন বিভাগেই প্রায় সমানতালে অংশ নিয়েছেন। ভবিষ্যতে ফোরাম আরও বড় আকারে এমন প্রতিযোগিতার আয়োজন করবে ইনশাআল্লাহ।

সাধারণ সম্পাদক আমিন ইকবাল বলেন, তিনটি বিভাগে তিন শতাধিক প্রতিযোগী অংশ নিয়েছেন। বিজ্ঞ বিচারকমণ্ডলী সেখান থেকে নয়জন বিজয়ী এবং পনেরজন সান্ত্বনা পুরস্কারের জন্য নির্বাচন করবেন। আগামী ৫ জানুয়ারি বেলা দুইটায় সেগুনবাগিচার কচি-কাঁচা মিলনায়তনে ফোরামের নবম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও লেখক সম্মিলনে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার হিসেবে মূল্যবান বই ও ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হবে।

তারা প্রতিযোগীদের সম্মিলনে যথাসময়ে উপস্থিত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন এবং ইসলাম নিয়ে লেখালেখি করেন এমন লেখকদের প্রতি বিশেষ দাওয়াত দিয়েছেন। অনুষ্ঠান বাস্তবায়নে সবার আন্তরিক দোয়া এবং সহযোগিতাও কামনা করেছেন তারা।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ ইসলামী লেখক ফোরাম ইসলামী ধারার তরুণ লেখকদের জাতীয় সংগঠন। বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় কর্মরত এবং সারাদেশে ছড়ানো লেখকদের নিয়ে ২০১৩ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি এই সংগঠনটি আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে। ইতোমধ্যে সারাদেশের প্রায় চারশত লেখক এই সংগঠনের সদস্য হয়েছেন। আবেদন করেছেন আরও দুই শতাধিক লেখক। বিভিন্ন কার্যক্রম দ্বারা ইসলামী লেখক ফোরাম ইতোমধ্যে তরুণ ধারার লেখকদের আস্থার প্রতীকে পরিণত হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ