শিরোনাম
গুলিস্তানে তৈরি হতো ফোন, লেখা ‘মেড ইন চায়না-ফিনল্যান্ড’ বাংলাদেশকে ২৮৫৪ কোটি টাকা ঋণ দিলো বিশ্বব্যাংক ইউক্রেনকে অস্ত্র দেয়া বন্ধ করুন: পশ্চিমা বিশ্বকে ব্রিটিশ রাজনীতিক টাঙ্গাইলে বাবাকে মেরে মসজিদের মাইকে প্রচার, ছেলে আটক খুলনা-মংলা পোর্ট রেলপথ ডিসেম্বরে চালু হবে : রেলপথ মন্ত্রী আয়মান আল-জাওয়াহিরি: আল-কায়েদা নেতা মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হয়েছেন বলে খবর প্রচার বিবিসির আমেরিকাকে সরাসরি রাশিয়ার ‘প্রধান হুমকি’ বলে ঘোষণা দিল মস্কো যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে চীন আমাদের গচ্ছিত অর্থ বিনা শর্তে অবিলম্বে ফেরত দিন: আমেরিকাকে তালেবান ‘ইসরাইল এখন আর লেবাননে আগ্রাসন চালানোর সাহস পায় না’
মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন

মালির রাজধানীতে হামলা প্রসারিত করেছে আল-কায়েদা: অফিসার সহ ৬ সেনা নিহত

ত্বহা আলী আদনান / ৩১ পঠিত
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৯ জুলাই, ২০২২

২০১১ সাল থেকে শরিয়াহ্ ও শাহাদাতের লক্ষ্য নিয়ে মালিতে দখলদার বাহিনীর বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে ইসলামি প্রতিরোধ যোদ্ধারা। যা আজও দেশটিতে অব্যাহত রয়েছে। যার ফলশ্রুতিতে প্রতিনিয়ত বহু গাদ্দার ও দখলদার সেনা প্রতিরোধ যোদ্ধাদের হাতে নিহত হচ্ছে। সেই সূত্র ধরেই সম্প্রতি মালির রাজধানী বামাকোতে অভিযান বিস্তৃত করেছেন ইসলামি প্রতিরোধ যোদ্ধারা।

গত ১৪ জুলাই বামাকোতে বীরত্বপূর্ণ একটি সফল অভিযান পরিচালনা করছেন আল-কায়েদা সংশ্লিষ্ট ইসলামি প্রতিরোধ যোদ্ধারা। যা গাদ্দার সামরিক বাহিনীর একটি ঘাঁটি টার্গেট করে চালানো হয়েছে। বরকতময় এই হামলায় অন্তত ৬ সেনা নিহত হয়, যাদের মধ্যে ৪ জনই উচ্চপদস্থ সেনা অফিসার। সেই সাথে আরও বহু সংখ্যক সৈন্য আহত হয়। এই অভিযানের ফলে দখলদার ক্রুসেডার বাহিনী এবং তাদের সাথে কাজ করা গাদ্দার বাহিনীর মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে।

মালিয়ান কর্তৃপক্ষের দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে, গত বৃহস্পতিবার রাতে ভারী অস্ত্রধারীরা সেনাদের উপর একটি অতর্কিত হামলা চালানো হয়েছে। যা রাজধানী বোমাকোর খুব কাছে অবস্থিত জনতাগিলা জেলার সামরিক ঘাঁটি লক্ষ্য করে চালানো হয়। এতে নিরাপত্তা বাহিনী ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে।

আঞ্চলিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে, আল-কায়েদা পশ্চিম আফ্রিকান শাখা জামা’আত নুসরাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমিন (জেএনআইএম) মালির মধ্য ও উত্তরাঞ্চলে খুবই সক্রিয়। সাম্প্রতিক সময়ে দলটি তাদের তৎপরতা বাড়িয়েছে। তাঁরা এখন রাজধানীতেও আক্রমণ চালাতে শুরু করেছে।

উল্লেখ্য যে, জেএনআইএম সাম্প্রতিক বছরগুলোতে মালির বাহিরে বিভিন্ন দেশে তাদের আক্রমণ স্থানান্তরিত করেছে। তাঁরা আইভরি কোস্ট, পশ্চিম ও দক্ষিণ মালি, দক্ষিণ বুর্কিনা ফাসো, বেনিন এবং টোগোর মতো অঞ্চলে কার্যক্রম সম্প্রসারিত করেছেন, আলহামদুলিল্লাহ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ