রবিবার, ২৬ জুন ২০২২, ০২:৪৫ অপরাহ্ন

ইসরাইল, আমিরাত, যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত মিলে ইসলাম বিদ্বেষীদের নতুন জোট গঠন

/ ২৫ পঠিত
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০২২

আফগানিস্তানে তালেবানদের হাতে চরমভাবে পরাজিত হয়ে ইসরাইল, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ভারতকে নিয়ে নতুন জোট গঠন করেছে রক্তপিপাসু যুক্তরাষ্ট্র।

গত ১৪-০৬-২২ রোজ মঙ্গলবার হোয়াইট হাউজ জানিয়েছে, আই২ইউ২ নামের নতুন এ জোট বিশ্বজুড়ে ইসলাম বিদ্বেষী মার্কিন মিত্রদের পুনরুজ্জীবিত এবং চাঙা করতে সন্ত্রাসী প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রশাসনের প্রচেষ্টার অংশ। আই২ইউ২ জোটের প্রথম ভার্চুয়াল সম্মেলন আগামী মাসে অনুষ্ঠিত হবে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিন্দুত্ববাদী নরেন্দ্র মোদি,রক্তপিপাসু মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, দখলদার ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের গাদ্দার প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান সম্মেলনে অংশ নেবে। এতে একে অপরের সহযোগিতার অন্যান্য ক্ষেত্র নিয়ে আলোচনা হবে।

বাইডেন প্রশাসনের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানায়, চার দেশের এই ভার্চুয়াল সম্মেলন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ১৩ থেকে ১৬ জুলাই পর্যন্ত মধ্যপ্রাচ্য সফরের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে। ওই কর্মকর্তা বলেছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ বিন জায়েদের সঙ্গে ‘অনন্য’ এই সংযোগের দিকে তাকিয়ে আছে প্রেসিডেন্ট বাইডেন।

মঙ্গলবার নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র নেড প্রাইস বলেছে, জোটের প্রতিটি দেশই একটি করে প্রযুক্তিগত হাব।

সে আরো বলেছে, ‘শুরু থেকে আমাদের পদ্ধতির একটি অংশ হচ্ছে বিশ্বজুড়ে আমাদের জোট এবং অংশীদারিত্বের ব্যবস্থাকে কেবল পুনরুজ্জীবিত এবং চাঙা করা নয়, সেই সঙ্গে এমন অংশীদারিত্বকে একত্রিত করা, যা আগে বিদ্যমান ছিল না বা তাদের সম্পূর্ণপে ব্যবহার করা হয়নি।’

মার্কিন মুখপাত্র আরও বলেছে, ‘বায়োটেকনোলজিও প্রখ্যাত। ইসরায়েল এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের সম্পর্কের ক্ষেত্রে এই দেশগুলোর মধ্যে বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক গভীর করা আমাদের স্বার্থ। এটি এমন কিছু যা আমরা গভীর করার চেষ্টা করতে চাইছি। এই দুই দেশ সাম্প্রতিক বছরগুলোতে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রসহ তাদের সম্পর্ক আরও গভীর করেছে।’

১৩ থেকে ১৬ জুলাই পর্যন্ত মধ্যপ্রাচ্য সফরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ইসরায়েল, পশ্চিম তীর, সউদী আরবে থামবে। এই সময়ে সে এই অঞ্চল ও আশপাশের এলাকার প্রায় এক ডজন দেশের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করবে। মার্কিন কর্মকর্তা জানায়, প্রথমে ইসরাইল থামবেন সে। এটাই হবে দেশটিতে প্রেসিডেন্ট হিসেবে বাইডেনের প্রথম সফর।

বিশ্লেষকদের মতে হিন্দুত্ববাদী ভারতে ও দখলদার ইসরাইলকে শক্তিশালী করতেই এ জোট করা হচ্ছে। যাতে করে দেশগুলো তাদের মুসলিম নির্মূলের মিশন আরও কার্যকরভাবে চালিয়ে নিতে পারে।

তথ্যসূত্র
—–
১.ইসরাইল, আমিরাত, যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতের নতুন জোট গঠন
https://tinyurl.com/5e668sn2


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ