শিরোনাম
গুলিস্তানে তৈরি হতো ফোন, লেখা ‘মেড ইন চায়না-ফিনল্যান্ড’ বাংলাদেশকে ২৮৫৪ কোটি টাকা ঋণ দিলো বিশ্বব্যাংক ইউক্রেনকে অস্ত্র দেয়া বন্ধ করুন: পশ্চিমা বিশ্বকে ব্রিটিশ রাজনীতিক টাঙ্গাইলে বাবাকে মেরে মসজিদের মাইকে প্রচার, ছেলে আটক খুলনা-মংলা পোর্ট রেলপথ ডিসেম্বরে চালু হবে : রেলপথ মন্ত্রী আয়মান আল-জাওয়াহিরি: আল-কায়েদা নেতা মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হয়েছেন বলে খবর প্রচার বিবিসির আমেরিকাকে সরাসরি রাশিয়ার ‘প্রধান হুমকি’ বলে ঘোষণা দিল মস্কো যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে চীন আমাদের গচ্ছিত অর্থ বিনা শর্তে অবিলম্বে ফেরত দিন: আমেরিকাকে তালেবান ‘ইসরাইল এখন আর লেবাননে আগ্রাসন চালানোর সাহস পায় না’
রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৮:০০ অপরাহ্ন

বাড়ির নিচেই সারা শীত ঘুমাচ্ছিল পাঁচ ভালুক!

/ ৮৬ পঠিত
প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২২

মিডিয়া ডেস্ক : ঘরের আশপাশে বার বার নাক ডাকার মতো অদ্ভুত আওয়াজ! সবাই উৎস খুঁজে হয়রান। শেষমেষ আবিষ্কার হলো, পাঁচ পাঁচটি ভাল্লুক তাদের বাড়ির নিচে পুরোটা শীতকাল কাটিয়ে দিয়েছে। ভালুক সংরক্ষণ সংগঠন ‘বিয়ার লীগ গ্রুপ’ ফেসবুকে ওই পরিবারের আজব অভিজ্ঞতার খবর দিয়েছে। ঘটনা যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার।

বিয়ার লীগ গ্রুপ বলেছে, বাড়ির বাসিন্দারা পুরো শীত মৌসুম জুড়ে অনেকটা নাক ডাকার মতো অদ্ভুত আওয়াজ শুনতে পেয়েছিলেন। ভেবে কুলকিনারা না পেয়ে আর চোখেও কিছু না পড়ায় তারা এক পর্যায়ে ওই শব্দ নিয়ে মাথা ঘামানো বাদ দেন। প্রতিবেশীরাও তাদের কথা শুনে বলেছিল, এসব নিশ্চয়ই তাদের মনের ভুল। কারণ তারা কোনো শব্দ শুনতে পায়নি।

শেষ পর্যন্ত চার চারটি বছরখানেক বয়সের ছানা নিয়ে এক মা ভালুক সামনে চলে এলে আর সন্দেহের অবকাশ থাকেনি। মানব বাসিন্দারা মানতে বাধ্য হন, বাড়িটির নিচের ‘ক্রলস্পেসে’ই খুব সম্ভবত ঘাঁটি গেড়েছিল ওই ভালুক পরিবার। যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঞ্চলে ভবনের একতলা আর ভিত্তির মাটির মধ্যকার অল্প ফাঁকা জায়গাকেই বলা হয় ক্রলস্পেস।

বিয়ার লিগ গ্রুপ ফেসবুকে ঘটনার বিশদ বিবরণ দিয়েছে। তারা জানিয়েছে, এক মা ভাল্লুক তার নিজের তিন শাবক আর অন্য ভালুকের এক এতিম বাচ্চা নিয়ে ক্রলস্পেসে শীতকালটা কাটানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। মা ভাল্লুকটিকে সরানোর ব্যবস্থা করতে বিয়ার লিগ গ্রুপকে ডাকা হয়েছিল। আরো চারটি শাবক দেখে তারা তো হতবাক।

বিয়ার লিগের নির্বাহী পরিচালক অ্যান ব্রায়ান্ট হাফপোস্টকে বলেন, ‘আমরা সেখানে পৌঁছানোর আগে বাসিন্দারা বুঝতেই পারেনি তাদের বাড়ির নিচেই পাঁচটি ভাল্লুক আছে।’ ব্রায়ান্ট বলেন, এসব ক্ষেত্রে ভালুককে একটু ভয় দেখিয়ে বোঝাতে হয়, সেখানে থাকাটা আর তার জন্য নিরাপদ হবে না। মা ভালুককে ক্রলস্পেস থেকে জাগিয়ে তোলা হলেই সে একসময় বাচ্চাদের কাছে ডেকে হাঁটতে শুরু করে। বাচ্চাগুলোও বাধ্যগতভাবে মায়ের পিছু নেয়।

জানা গেছে, আবার যেন কোনো ভালুক এসে বাসা না বানায় সেজন্য মৃদু বৈদ্যুতিক শক দেওয়ার একটি বেড়া বসানো হয়েছে ওই বাড়ির ক্রলস্পেসে। অ্যান ব্রায়ান্ট জানিয়েছেন, প্রতিরোধই হলো অবাঞ্ছিত ভালুক অতিথির বিরুদ্ধে সর্বোত্তম প্রতিরক্ষা।

সূত্র: এনডিটিভি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ