শিরোনাম
গুলিস্তানে তৈরি হতো ফোন, লেখা ‘মেড ইন চায়না-ফিনল্যান্ড’ বাংলাদেশকে ২৮৫৪ কোটি টাকা ঋণ দিলো বিশ্বব্যাংক ইউক্রেনকে অস্ত্র দেয়া বন্ধ করুন: পশ্চিমা বিশ্বকে ব্রিটিশ রাজনীতিক টাঙ্গাইলে বাবাকে মেরে মসজিদের মাইকে প্রচার, ছেলে আটক খুলনা-মংলা পোর্ট রেলপথ ডিসেম্বরে চালু হবে : রেলপথ মন্ত্রী আয়মান আল-জাওয়াহিরি: আল-কায়েদা নেতা মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হয়েছেন বলে খবর প্রচার বিবিসির আমেরিকাকে সরাসরি রাশিয়ার ‘প্রধান হুমকি’ বলে ঘোষণা দিল মস্কো যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে চীন আমাদের গচ্ছিত অর্থ বিনা শর্তে অবিলম্বে ফেরত দিন: আমেরিকাকে তালেবান ‘ইসরাইল এখন আর লেবাননে আগ্রাসন চালানোর সাহস পায় না’
বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০৫:৪৪ পূর্বাহ্ন

পৃথিবী আবার সুন্নতে জেগে উঠুক !

/ ৩৯ পঠিত
প্রকাশের সময় : রবিবার, ৩ এপ্রিল, ২০২২

সাঈদ আবরার

হযরত মুহাম্মদ। সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম।হাবীবে খোদা ।আখেরি পয়গম্বর।সর্বকালের শ্রেষ্ঠ মানব।যার উম্মত আমি, আপনি ,আমরা সবাই।
যাকে ভালোবাসি পৃথিবীর সবচে বেশি। এ জীবনের চেয়েও বেশি। প্রিয়তমা স্ত্রীর চেয়েও বেশি। রক্তের সন্তানের চেয়ে বেশি। যে ভালোবাসার ক্ষয় নেই। লয় নেই। চিরন্তন । আর এ ভালোবাসা যে ঈমানেরও দাবি। কারো ঈমান পূর্ণতা পায় না নবীপ্রেম ছাড়া।

নবীর ভালোবাসা ছাড়া। পেতেও পারে না কোনদিন! তবে প্রতিটি ভালোবাসার কিছু দাবি-দাওয়া থাকে। থাকে হৃদয় উৎসারিত কিছু গভীর নিবেদন। বলা-কওয়া ছাড়াই যেগুলো বুঝে নিতে হয় নিজ থেকে। হৃদয় থেকে। আর সেসব পূরণে থাকে প্রেমাদ্র মনের স্নিগ্ধ অনুভূতি। মধুর অভিব্যক্তি।

কাউকে ভালোবাসার একটি প্রধান দাবি হলো -তার নিঃশর্ত অনুকরণ অনুসরণ। চিন্তায় ও চেতনায় যেমন, আচার -উচ্চারণেও তেমন। তাই রাসূলের প্রতি আমাদের সর্বাধিক ভালবাসার প্রধানতর দাবি হলো-ইত্তেবায়ে সুন্নাত। তার সুন্নতের নিঃশর্ত অনুসরণ।

তার সুন্নতের অনুসরণ মানেই হলো তার অনুকরণ। আর মুমিন জীবনের সফলতা কামিয়াবি এরই মাঝে। চাই সে জীবন হোক দুনিয়ার কিবা আখেরাতের! আল্লাহ তা’আলা কুরআনে করীমে বলেন-
قُلْ إِن كُنتُمْ تُحِبُّونَ اللّهَ فَاتَّبِعُونِي يُحْبِبْكُمُ اللّهُ وَيَغْفِرْ لَكُمْ ذُنُوبَكُمْ

‘হে নবী! বলুন, যদি তোমরা আল্লাহকে ভালবাসো, তাহলে আমাকে অনুসরণ করো, যাতে আল্লাহ তাআলাও তোমাদেরকে ভালবাসবেন এবং  তোমাদের পাপগুলো মাফ  করে দিবেন।’
এদিকে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন-
من احب سنتى
فقد احبنى . ومن احبنى كان معي في الجنة.
”যে আমার সুন্নতকে ভালবাসলো, সে যেন আমাকেই ভালোবাসলো। আর যে আমাকে ভালবাসলো, সে আমার সাথেই জান্নাতে থাকবে।”
সুবাহানাল্লাহ! সুন্নতের এ ফজিলত কি বিশাল! কি পরম সৌভাগ্যের !

(২)দীর্ঘ ক’মাস পেরিয়েছে আমরা ঘরবন্দি। লক ডাউনে থমকে গেছে পৃথিবী ।সবাই করোনা আতঙ্কে ।মৃত্যুভয়ে  জড়োসড়ো। দাপুটে রাষ্ট্রগুলোও পরিস্থিতি সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে। ভয়াবহ রূপ নেয়ার প্রবল আশঙ্কা সামনে। স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীরা এখনো আবিষ্কার করতে পারেনি কোন ভ্যাকসিন ।করোনা নিরাময়ক ঔষধ ।

বলছেন শুধু বিশেষ কিছু স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কথা ।করোনা থেকে মুক্তি পেতে
এসবের বিকল্প কিছুই ভাবতে পারছেন না তারা ।জেনে অবাক নিশ্চয়ই হবেন না- এসব গুলোই নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের সুন্নত।

হাজার বছর আগেই যিনি উম্মতকে এডভাইসগুলো দিয়ে গেছেন। প্রথমেই লকডাউন এর কথাই বলি ।লকডাউন একটি সুন্নত। যেমনটি প্রমাণিত হয় রাসূলের নির্দেশ থেকেই। তিনি বলেছেন- ‘যদি তোমরা মহামারীর কোন সংবাদ শোনো,  তো সেখানে (আক্রান্ত অঞ্চলে ) প্রবেশ করা থেকে বিরত থাকো। যদি কোন শহরে বা নগরে কেউ মহামারীতে আক্রান্ত হয় , তো সেখান থেকেও তোমরা বের হয়ে অন্য কোন অঞ্চলে যেও না ‘(সহীহুল বুখারী )

এছাড়াও দু’হাত বারবার ধোয়া তাগিদ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা ।এটাও কিন্তু রাসুলের একটি সুন্নত ।প্রতিদিন পাঁচ বেলা তিনবার দু’হাত ধোয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। আবার ঘুম থেকে উঠে , খাবারের আগে ও পরে দু’হাত ধুতে বলেছেন তিনি ।
যেমন সালমান রাযিআল্লাহু তা’আলা আনহু থেকে বর্ণিত,  রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওসাল্লাম বলেছেন- খাবারের বরকত লাভের উপায় হলো,  তার আগে ও পরে অজু করা’। (সুনানে আবু দাউদ)
হাদিস বিশারদগণ বলেন -এখানে ওযু দ্বারা উদ্দেশ্য হলো- দু’হাত কব্জি পর্যন্ত ভালোভাবে ধুয়ে নেয়া।

এমনিভাবে কাপড় -চোপড় ঘর-বাড়ি পরিচ্ছন্ন রাখার কথাও কিন্তু বারবার স্মরণ করিয়ে দেয়া হচ্ছে। আর এ সুন্নতের প্রতি তো তাগিদ দিতে গিয়ে রাসুল বলে গেছেন- ‘পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা ঈমানের অঙ্গ ‘(মিশকাত)  আরেক হাদিসে বলেছেন– ‘অবশ্যই আল্লাহ তায়ালা পবিত্র- তিনি পবিত্রতা ভালোবাসেন। তিনি পরিচ্ছন্ন -পরিচ্ছন্নতা পছন্দ করেন ।তিনি মহান ও দয়ালু -মহত্ব ও দয়া ভালোবাসেন।

সুতরাং তোমরা তোমাদের বাড়ির চারপাশ পরিচ্ছন্ন রাখ’। (সুনানে তিরমিজি)  আর এভাবেই ঘরে বসে বিভিন্ন সুন্নতে আমরা অভ্যস্ত হয়ে উঠছি ইচ্ছায়-অনিচ্ছায়। সওয়াবের নিয়তে কিবা নিয়ত ছাড়াই ।মুসলিম -অমুসলিম নির্বিশেষে ।কিন্তু চলুন না, আজ থেকে জেনে সঠিক সুন্নত গুলোর আমল করি.! আর সাথে সাথে করোনা ভাইরাস থেকে পরিত্রাণের নিয়ত করি ।পূর্ববর্তী মনীষীদের জীবন থেকে জানা যায় -তারা বিশেষ সংকট থেকে মুক্তি পেতে বিশেষ সুন্নতের আমল করে পরিত্রান পেয়েছেন।

সম্প্রতি নাইজেরিয়ান গভর্নর সেয়ি মাকেন্দি তো স্বীকারই করেছেন-
‘আমি দুটি সুন্নত মেনে করোনা ভাইরাস থেকে সুস্থ হয়েছি’। তাহলে আজ থেকেই ঘরে থাকার দিনগুলো কাটুক রাসূল সা.  এর সুন্নত মাফিক ।

আর হ্যাঁ , সংগ্রহে সুন্নতের কোন বই না থাকলেও চিন্তা নেই ।প্রযুক্তির কল্যাণে সবই সহজ। গুগলে সার্চ দিন “কিতাবুস সুন্নাহ” লিখে ।পিডিএফ বইটি পড়ে প্রতিদিন দু চারটে করে সুন্নতের আমল শুরু  করি !দোয়া করতে থাকি ইনশাআল্লাহ ! সবুজাভ পৃথিবী একদিন সুস্থ হয়ে উঠবে ।পৃথিবী আবার সুন্নতে জেগে উঠুক!

  • শিক্ষার্থী-জামিয়া আরাবিয়া ইমদাদুল উলুম ফরিদাবাদ , ঢাকা
    sayedabrar16@gmail.com


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ