শিরোনাম
লেখক ফোরাম সাহিত্য প্রতিযোগিতার বিচারক প্যানেলে আছেন যারা ডিএসইসি লেখক সম্মাননা পেলেন লেখক ফোরামের জহির উদ্দিন বাবর ও মাসউদুল কাদির আল্লামা শফীর ১৩ দফা বাস্তবায়নে পুনরায় সক্রিয় হচ্ছে হেফাজত সরকারবিরোধী আন্দোলন : বিএনপি নেতাকর্মীরা চাঙা তিন কারণে নারায়ণগঞ্জে আবারো গলাকাটা লাশ উদ্ধার গুলিস্তানে তৈরি হতো ফোন, লেখা ‘মেড ইন চায়না-ফিনল্যান্ড’ বাংলাদেশকে ২৮৫৪ কোটি টাকা ঋণ দিলো বিশ্বব্যাংক ইউক্রেনকে অস্ত্র দেয়া বন্ধ করুন: পশ্চিমা বিশ্বকে ব্রিটিশ রাজনীতিক টাঙ্গাইলে বাবাকে মেরে মসজিদের মাইকে প্রচার, ছেলে আটক খুলনা-মংলা পোর্ট রেলপথ ডিসেম্বরে চালু হবে : রেলপথ মন্ত্রী
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:৫৩ অপরাহ্ন

যুদ্ধবিরতি নিয়ে যা বলছেন বিশ্বনেতারা

/ ৩৮৫ পঠিত
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২১ মে, ২০২১

মিডিয়া ডেস্ক : টানা ১১ দিনের হামলার পর যুদ্ধবিরতি ঘোষণা হয়েছে ফিলিস্তিনে। আর এই যুদ্ধবিরতিতে খুশি বিশ্বনেতারা। নিজেদের মতামত জানিয়েছেন তারা।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন যুদ্ধবিরতিকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন, তার প্রশাসন ফিলিস্তিনে মানবিক সাহায্য পৌঁছে দেবে। তিনি বলেন, ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মানুষের নিরাপদে জীবনযাপনের সমান অধিকার আছে, সমান স্বাধীনতা আছে। এটাই সুযোগ, উন্নতির লক্ষ্যে এগিয়ে যাওয়ার। মিশরের মধ্যস্থতায় এই যুদ্ধবিরতি সম্ভব হয়েছে। তাই মিশরকে ধন্যবাদ দিয়েছেন বাইডেন। তারপরই মিশরের প্রেসিডেন্ট আব্দেল ফতাহ আল-সিসি বলেছেন, ‘যুদ্ধবিরতির পিছনে বাইডেনের অবদান অনেক বেশি।’
যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব টুইট বার্তায় বলেছেন, ”এই যুদ্ধবিরতি যাতে দীর্ঘস্থায়ী হয়, সেজন্য সব পক্ষকে কাজ করতে হবে। সহিংসতা এবং সাধারণ মানুষের মৃত্যু মেনে নেয়া যায় না। এই সহিংসতা বন্ধ করতে হবে। যুক্তরাজ্য শান্তির জন্য যে কোনো উদ্যোগকে সমর্থন করবে।” জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, ১১ দিনের মারাত্মক সংঘাত শেষের ঘোষণাকে তিনি স্বাগত জানাচ্ছেন। গুতেরেস বলেছেন, ”এই সংঘাত কেন হলো, তার মূল কারণ খুঁজতে হবে ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনকে। তাদের আলোচনা শুরু করতে হবে।”

এদিকে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি বলেছেন, ”সকলে যুদ্ধবিরতির জন্য চেষ্টা করেছিলেন। এটা হলো সেই সম্মিলিত শক্তির ফল। তবে এটা ফিলিস্তিনে শান্তি আসার ক্ষেত্রে প্রথম পদক্ষেপ।” অন্যদিকে সুইডেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাান লিন্ডে বলেছেন, ”এটা ভাল খবর। এখন গাজায় মানবিক সাহায্য পৌঁছানো সব চেয়ে জরুরি কাজ। তারপর শান্তি আলোচনা করতে হবে।”

যুদ্ধবিরতি নিয়ে যা বলছেন বিশ্বনেতারা

মিডিয়া ডেস্ক : টানা ১১ দিনের হামলার পর যুদ্ধবিরতি ঘোষণা হয়েছে ফিলিস্তিনে। আর এই যুদ্ধবিরতিতে খুশি বিশ্বনেতারা। নিজেদের মতামত জানিয়েছেন তারা।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন যুদ্ধবিরতিকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন, তার প্রশাসন ফিলিস্তিনে মানবিক সাহায্য পৌঁছে দেবে। তিনি বলেন, ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মানুষের নিরাপদে জীবনযাপনের সমান অধিকার আছে, সমান স্বাধীনতা আছে। এটাই সুযোগ, উন্নতির লক্ষ্যে এগিয়ে যাওয়ার। মিশরের মধ্যস্থতায় এই যুদ্ধবিরতি সম্ভব হয়েছে। তাই মিশরকে ধন্যবাদ দিয়েছেন বাইডেন। তারপরই মিশরের প্রেসিডেন্ট আব্দেল ফতাহ আল-সিসি বলেছেন, ‘যুদ্ধবিরতির পিছনে বাইডেনের অবদান অনেক বেশি।’
যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব টুইট বার্তায় বলেছেন, ”এই যুদ্ধবিরতি যাতে দীর্ঘস্থায়ী হয়, সেজন্য সব পক্ষকে কাজ করতে হবে। সহিংসতা এবং সাধারণ মানুষের মৃত্যু মেনে নেয়া যায় না। এই সহিংসতা বন্ধ করতে হবে। যুক্তরাজ্য শান্তির জন্য যে কোনো উদ্যোগকে সমর্থন করবে।” জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, ১১ দিনের মারাত্মক সংঘাত শেষের ঘোষণাকে তিনি স্বাগত জানাচ্ছেন। গুতেরেস বলেছেন, ”এই সংঘাত কেন হলো, তার মূল কারণ খুঁজতে হবে ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনকে। তাদের আলোচনা শুরু করতে হবে।”

এদিকে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি বলেছেন, ”সকলে যুদ্ধবিরতির জন্য চেষ্টা করেছিলেন। এটা হলো সেই সম্মিলিত শক্তির ফল। তবে এটা ফিলিস্তিনে শান্তি আসার ক্ষেত্রে প্রথম পদক্ষেপ।” অন্যদিকে সুইডেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাান লিন্ডে বলেছেন, ”এটা ভাল খবর। এখন গাজায় মানবিক সাহায্য পৌঁছানো সব চেয়ে জরুরি কাজ। তারপর শান্তি আলোচনা করতে হবে।”

এদিকে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি বলেছেন, ”সকলে যুদ্ধবিরতির জন্য চেষ্টা করেছিলেন। এটা হলো সেই সম্মিলিত শক্তির ফল। তবে এটা ফিলিস্তিনে শান্তি আসার ক্ষেত্রে প্রথম পদক্ষেপ।” অন্যদিকে সুইডেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাান লিন্ডে বলেছেন, ”এটা ভাল খবর। এখন গাজায় মানবিক সাহায্য পৌঁছানো সব চেয়ে জরুরি কাজ। তারপর শান্তি আলোচনা করতে হবে।”


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ