শিরোনাম
আল্লামা শফীর ১৩ দফা বাস্তবায়নে পুনরায় সক্রিয় হচ্ছে হেফাজত সরকারবিরোধী আন্দোলন : বিএনপি নেতাকর্মীরা চাঙা তিন কারণে নারায়ণগঞ্জে আবারো গলাকাটা লাশ উদ্ধার গুলিস্তানে তৈরি হতো ফোন, লেখা ‘মেড ইন চায়না-ফিনল্যান্ড’ বাংলাদেশকে ২৮৫৪ কোটি টাকা ঋণ দিলো বিশ্বব্যাংক ইউক্রেনকে অস্ত্র দেয়া বন্ধ করুন: পশ্চিমা বিশ্বকে ব্রিটিশ রাজনীতিক টাঙ্গাইলে বাবাকে মেরে মসজিদের মাইকে প্রচার, ছেলে আটক খুলনা-মংলা পোর্ট রেলপথ ডিসেম্বরে চালু হবে : রেলপথ মন্ত্রী আয়মান আল-জাওয়াহিরি: আল-কায়েদা নেতা মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হয়েছেন বলে খবর প্রচার বিবিসির আমেরিকাকে সরাসরি রাশিয়ার ‘প্রধান হুমকি’ বলে ঘোষণা দিল মস্কো
শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৪১ পূর্বাহ্ন

ফতোয়ার পর মন্দির নির্মাণ স্থগিত করল ইমরান সরকার!

/ ৪৩১ পঠিত
প্রকাশের সময় : শনিবার, ৪ জুলাই, ২০২০

মিডিয়া ডেস্ক : ইসলামি সংগঠন জামিয়া আশরাফিয়ার জারি করা ফতোয়াতে শেষ পর্যন্ত ভয় পেলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ইসলামাবাদে প্রথম শ্রীকৃষ্ণ মন্দির নির্মাণের কাজ আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান সরকার।

অনেকেই মনে করছেন, মুসলিম কট্টরপন্থীদের ফতোয়ায় ভয় পেয়ে পিছু হটলেন ইমরান খান। কয়েক দিন আগেই তার সরকার ওই মন্দির নির্মাণের জন্য ১০ কোটি টাকা অনুদান দেওয়ার ঘোষণা করেছিল।

ইসলামাবাদের এইচ-৯/২ সেক্টরে ওই মন্দির নির্মাণের কথা ছিল। পাকিস্তানের মানবাধিকার বিষয়ক সংসদীয় সম্পাদক লাল চাঁদ মাহি গত সপ্তাহেই মাটি খুঁড়ে মন্দির প্রতিষ্ঠার কাজের উদ্বোধন করেছিলেন।

তবে দু’দিন আগেই জামিয়া আশরাফিয়া নামের একটি ইসলামিক সংগঠন মন্দির প্রতিষ্ঠা নিয়ে প্রশ্ন তোলে। জামিয়া আশরাফিয়া মন্দির নির্মাণ থামাতে ফতোয়া জারি করে।

তাদের দাবি ছিল, পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের যে কয়েকটি ধর্মস্থান রয়েছে, সেগুলো রক্ষণাবেক্ষণ করা যেতে পারে। কিন্তু নতুন করে আর কোনো মন্দির নির্মাণ করা যাবে না। জনগণের করের টাকায় মন্দির নির্মাণ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল ওই সংগঠন।

তাদের জারি করা ফতোয়ার পর পাকিস্তান সরকার মন্দির নির্মাণের কাজ স্থগিত রাখল। যদিও লাল চাঁদ মাহি বলেছিলেন, কোনো বাধা তারা আর মানবেন না। মন্দির প্রতিষ্ঠা হচ্ছেই। তবে চাপের মুখে তিনিও নতি স্বীকার করতে বাধ্য হলেন।

পাকিস্তানের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সংখ্যালঘুদের ধর্মীয় ভাবাবেগের মূল্য দেওয়া হবে। তবে আপাতত মন্দির নির্মাণের কাজ বন্ধ রাখা হবে। ভবিষ্যতে ওই মন্দির নির্মাণের জন্য অনুদান দেওয়ার ব্যাপারে চিন্তা করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ