শিরোনাম
আল্লামা শফীর ১৩ দফা বাস্তবায়নে পুনরায় সক্রিয় হচ্ছে হেফাজত সরকারবিরোধী আন্দোলন : বিএনপি নেতাকর্মীরা চাঙা তিন কারণে নারায়ণগঞ্জে আবারো গলাকাটা লাশ উদ্ধার গুলিস্তানে তৈরি হতো ফোন, লেখা ‘মেড ইন চায়না-ফিনল্যান্ড’ বাংলাদেশকে ২৮৫৪ কোটি টাকা ঋণ দিলো বিশ্বব্যাংক ইউক্রেনকে অস্ত্র দেয়া বন্ধ করুন: পশ্চিমা বিশ্বকে ব্রিটিশ রাজনীতিক টাঙ্গাইলে বাবাকে মেরে মসজিদের মাইকে প্রচার, ছেলে আটক খুলনা-মংলা পোর্ট রেলপথ ডিসেম্বরে চালু হবে : রেলপথ মন্ত্রী আয়মান আল-জাওয়াহিরি: আল-কায়েদা নেতা মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হয়েছেন বলে খবর প্রচার বিবিসির আমেরিকাকে সরাসরি রাশিয়ার ‘প্রধান হুমকি’ বলে ঘোষণা দিল মস্কো
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০২:২৫ অপরাহ্ন

বাজেটে দুর্নীতিকে উৎসাহিত করা হয়েছে : চরমোনাই পীর

/ ৫০৬ পঠিত
প্রকাশের সময় : শনিবার, ২০ জুন, ২০২০

প্রস্তাবিত বাজেট কালো টাকা প্রশ্নাতিতভাবে সাদা করার প্রস্তাব দেয়ার মাধ্যমে দেশের রাজস্ব আদায়ের খাতকে পঙ্গু করে একদিকে সৎ ব্যবসায়ীদের শাস্তি প্রদান, অপরদিকে দুর্নীতিকে উৎসাহিত করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

শনিবার এক অডিও বার্তায় তিনি বলেন, অর্থমন্ত্রী তার প্রস্তাবিত বাজেটে এতদিনের দুর্নীতিবাজ অপরাধী কালো মানুষদের সাদা মানুষ সাজার সুযোগ দেয়া ও জাতীয় সংসদকে ব্যবহার করে দুর্নীতিকে আইনি বৈধতা দিয়েছেন। কারণ টাকা কালো হয় দুই ভাবে, বৈধ আয়ের আয়কর না দেয়ার মাধ্যমে এবং অবৈধ উপায়ে টাকা উপার্জনের মাধ্যমে।

চরমোনাই পীর বলেন, দেশের সৎব্যবসায়ীরা পুঁজিবাজারে নিবন্ধিত হলে ২৫ শতাংশ হারে আর সাধারণ কোম্পানীগুলো ৩৫ শতাংশ হারে কর দিয়ে থাকেন। পোষাক খাতও ১২ শতাংশ হারে কর দিয়ে থাকে।

তিনি বলেন, এখন ১০ শতাংশ হারে কর দিয়ে কালো টাকা প্রশ্নাতিতভাবে সাদা করার সুযোগের প্রস্তাবনায় সৎ ব্যবসায়ীদের গালে চপেটাঘাত করা হলো। একজন নিয়মিত কর না দিয়ে সেটা দিয়ে মুনাফা করেছে, আবার স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক কম কর দিয়ে তা সাদাও করে ফেলেছে। এ পরিস্থিতিতে ব্যবসায়ীরা উচ্চহারে নিয়মিত কর কেন দেবেন?

তিনি আরও বলেন, এই প্রস্তাব রাজস্ব আদায় আরো কমিয়ে দেবে। অসৎ ব্যবসায়ীরাও এখন সাদা মানুষে পরিণত হবে। চাঁদাবাজরাও সাদা মানুষে পরিণত হবে। এ প্রস্তাবের মাধ্যমে সততা দেশে বোকামী হিসেবে পরিগণিত হবে। তাই এই দুর্নীতি সহায়ক প্রস্তাবনা বাতিলের জোর দাবি জানাচ্ছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ