রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৮:১১ অপরাহ্ন

চার হাসপাতাল ঘুরেও চিকিৎসা পেলেন না ব্যবসায়ী ; অ্যাম্বুলেন্সেই মারা গেলেন!

/ ৩৪৫ পঠিত
প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১২ জুন, ২০২০

আওয়ার মিডিয়া : চার হাসপাতাল ঘুরেও ভর্তি হতে না পেরে চিকিৎসার অভাবে অ্যাম্বুলেন্সেই মারা গেছেন টঙ্গীর বিশিষ্ট এক ব্যবসায়ী। টঙ্গীর পাগাড় এলাকার প্রভাবশালী ফকির পরিবারের ওই ব্যবসায়ীর নাম মো. মাহতাব উদ্দীন ফকির (৫২)। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাঁর মৃত্যু হয়। তিনি করোনা উপসর্গে ভুগছিলেন।

মৃত মাহতাব ফকির ভাতিজা মোবারক হোসেন ফকির বলেন, ৮-৯ দিন ধরে চাচা তিনি জ¦র-সর্দি, গলাব্যথা ও কাশিতে ভুগছিলেন। অবস্থার অবনতি ঘটলে বুধবার সকালে ঢাকার উত্তরার বাংলাদেশ মেডিকেলসহ কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালে ঘুরেও করোনা টেস্টের রিপোর্ট না থাকায় ভর্তি করাতে পারেননি। 
পরে ওইদিন দুপুরে কুর্মিটোলা হাসপাতালে করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। অবস্থা অবনতি ঘটলে তাকে ওই হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করেন চিকিৎসক। রাত আড়াইটার দিকে চিকিৎসক জানান ‘রোগীর অবস্থা সংকটাপন্ন, আইসিও লাগবে। কিন্তু কুর্মিটোলা হাসপাতালে বেড নেই। অন্য হাসপাতালে নিয়ে যান’। 

গভীর রাতে হাসপাতাল না পেয়ে চাচাকে টঙ্গীর বাসায় নিয়ে আসেন তিনি। বৃহস্পতিবার ভোরে অবস্থার আরো অবনতি হলে প্রথমে ঢাকার এপোলো হাসপাতালে নিয়ে যান।

রিসিপশন থেকে প্রথমেই জানতে চায় সাথে করেনা পরীক্ষার নেগেটিভ রিপোর্ট আছে কিনা। নেই জানালে অসুখের লক্ষণ শুনে রোগেীর মুখ না দেখেই তারা অন্য হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেন।

একইভাবে করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট না থাকায় ইউনাইটেড হাসপাতাল ও আবার বাংলাদেশ মেডিকেলে  নিয়ে শত কাকুতি-মিনতি করেও ভর্তি করাতে না পেরে যান উত্তরার শিনজিন হাসপাতালে। সেখানে অ্যাম্বুলেন্সে রেখে চিকিৎসক রোগীর নাড়ী পরীক্ষা করে জানান তিনি আর বেঁচে নেই। দুপুরে লাশ বাসায় এনে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ