রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৮:১৪ অপরাহ্ন

আমাকেও দিবে রে কবর !

/ ৫৫৩ পঠিত
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২০

সাঈদ বিন ইদ্রিস

জন্ম মানে মৃত্যু। এটাই পৃথিবীর চিরন্তন বিধান। কখনো এর ব্যত্যয় ঘটেনি এবং ঘটার নূন্যতম সম্ভাবনাও নেই। দুনিয়া সৃষ্টির শুরু থেকে আজ অবধি মৃত্যুর স্বাদ চাখেনি, এমন কাউকে পাওয়া যাবে না।মরতে হবে আমাদের সবারি।

আমাদের এক চাচা মারা গেলেন, এই তো সেদিন(ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। দাফনের ব্যবস্থা করতে হবে। এমন লোকও নেই, যারা দাফনের ব্যবস্থা করবে।সবাই দূরে থাকেন;আসছেন তারা।

তাই,কবর খুঁড়তে গেলাম। আগে কখনো এমন মহান কাজ করা হয়নি। কাজটি সহজ হলেও অনেক কঠিন কাজ থেকেও কঠিন মনে হয়েছে আমার কাছে!বারবার মনে হচ্ছিলো,আজকে আমার চাচার জন্য কবর খুঁড়ছি;একদিন এভাবে আমার জন্যও ‘কবর’খোঁড়া হবে! এ-যেন আমার জন্যই খুঁড়ছি; নিজ হাতে নিজের কবর!আামাকেও দিবে রে কবর।

মৃত্যুর সাথে এভাবে কখনো আলিঙ্গন করা হয়নি আগে।মৃত কোন ব্যক্তির সাথে এতটা ঘনিষ্ঠ হইনি কখনো।কারণ,বংশের যারাই মারা যান, তখন বেশিরভাগ সময় ঢাকাতে’ই থাকি। আসা হয়না।

আর একজন মানুষ আসার জন্য মৃত ব্যক্তিকে লম্বা সময় রেখে দেওয়াও সমিচিন নয়।

দুপুরে মসজিদে মাইকিং করলাম-আমার চাচার মৃত্যুর। আসলে,এতটা সহজ নয়, যতটা সহজে বললাম।আমি তখন উতলা ছিলাম,এ-যেন আমারি মৃত্যুর ঘোষণা দিচ্ছি আমি!এমন কি হতে পারে না;যার মৃত্যু সে নিজেই নিজের মরার সংবাদ জানিয়ে যাবে মানুষকে!?

মৃত ব্যক্তির জানাযায় শরিক হলে মৃত্যুর কথা স্মরণ হয়।এ-তো প্রিয় নবির কথা।তাই,জানাযায় শরিক হতে তিনি উদ্ভুদ্ধ করেছেন উম্মতকে।বলেছেন,এটা মুসলমানের হক।আগে কখনো এতটা গভীরভাবে উপলব্ধি করা হয়নি;সুযোগ হয়নি!

প্রিয় নবি,তিনি সত্যিই বলেছেন। জানাযা হলো,খাটের সামনে দাঁড়িয়ে নাম পড়লাম।মৃত্যু, এখন আমার চোখের সামনে।

লাশের খাট কাঁধে করে নিয়ে গেলাম কবরস্থানে। আগে কখনো এমন সৌভাগ্য অর্জন করা হয়নি আমার! আমি লাশ কাঁধে হেঁটে চলছি হালকা পায়ে,মৃতের যেনো কষ্ট না হয়;আর ভাবছি,সেদিন আমাকেও সবাই কাঁধে নিয়ে হেঁটে চলবে;আমাকে একলা রেখে আসতে! আজ আমার কাঁধে আমার চাচার ‘লাশ’;একদিন আমার লাশ হবে অন্যের কাঁধে!সেদিন,আমাকেও দিবে রে কবর।

লাশ কবরে রেখে ঢেকে দিলাম মাটি দিয়ে;সপে দিলাম আল্লাহর এক বান্দাকে তার হাতে।আমরা দোয়া করলাম,মৃতের জন্য। একলা রেখে এখন আমরা আবার ছুটবো দুনিয়ার উদ্দেশ্যে;আমাদের গন্তব্যে। কিন্তু মৃত্যুর কথা কতটা মনে থাকে আমাদের! এই যে কিছুসময়, হয়তো এতটুকুই। কিন্তু,একদিন আমাকেও দিবে রে কবর।

মানুষ মারা গেলে তার সব আমলের পথ রূদ্ধ করে দেওয়া হয়।বন্ধ হয়ে যায় আমল পৌঁছা।কিন্তু আমাদের একটুখানি দোয়াই তার জন্য কষ্ট লাঘবের কারণ হবে।এ-জন্য আমরা দোয়া করে ফিরে আসলাম।সাথে নিয়ে এলাম আমার পথের পাথেয়। কারণ,আমাকেও দিয়ে রে কবর!

“মৃত্যু” কার যে কখন এসে যায়। তাই,আমার এবং সকলের উচিত মৃত্যুর কথা সদা স্মরণ রাখা।আল্লাহ! আমাদের তাওফিক দাও,মৃতের কথা স্মরণ রাখার। এবং এভাবেই একদিন তোমার সাথে মিলিত হওয়ার।আমিন।

রোজনামচার পাতা থেকে : তারিখ ২৪, ৩, ২০২০


আপনার মতামত লিখুন :

One response to “আমাকেও দিবে রে কবর !”

  1. Hamim says:

    Nice….

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ